News

ভোট মিটলেও , পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদে নতুন বোর্ড গঠনে আরো ২ মাস দেরি।

বিগত ৮ ই জুলাই রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট পর্ব মিটেছে। ভোটের ফলাফলও প্রকাশ হয়ে গিয়েছে। ভোটের ফলাফল ঘোষনার পর রাজ্যজুড়ে লাগামহীন সন্ত্রাসের কারণে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে কোনো প্রার্থীকেই জয়ী ঘোষণা করা যাবে না এখনো।

ভোট মিটলেও , পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদে নতুন বোর্ড গঠনে আরো ২ মাস দেরি।

বিগত ৮ ই জুলাই রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট পর্ব মিটেছে। ভোটের ফলাফলও প্রকাশ হয়ে গিয়েছে। ভোটের ফলাফল ঘোষনার পর রাজ্যজুড়ে লাগামহীন সন্ত্রাসের কারণে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে কোনো প্রার্থীকেই জয়ী ঘোষণা করা যাবে না এখনো।

 

 

 

 

রাজ্যের একাধিক আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছে তৃনমূল কংগ্রেস। ভোটে জেতার পর জেলা পরিষদ ও পঞ্চায়েত সমিতিতে পদ পাওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে তৃণমূলের অন্দরে। কে জেলা পরিষদের সভাধিপতি হবে, কাদেরই বা কর্মাধ্যক্ষ করা হবে, কিংবা পঞ্চায়েত সমিতিতে সভাপতি কে হবেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে ।তবে সঠিক সময়ে ভোটপর্ব মিটলেও এখনও জেলা পরিষদে শপথ নয়। পঞ্চায়েত সমিতি গঠনেও এখন অনেক দেরি। কম করে দু’মাস অপেক্ষা করতেই হবে বিজয়ীদের। তেমনটাই দলীয় সূত্রে খবর | এর অন্যতম কারণ হল, রাজ্যের অধিকাংশ জেলা পরিষদের মেয়াদ ফুরচ্ছে সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে। যেমন পূর্ব বর্ধমানে জেলা পরিষদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়েছিল ২০১৮ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর। অর্থাত্‍ বর্তমান বোর্ড পদাধিকারিদের মেয়াদ রয়েছে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তার আগে বোর্ড ভেঙে নতুন করে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করতে গেলে আদালতে মামলা করা হতে পারে। আবার বাঁকুড়া জেলায় জেলা পরিষদের শপথও হয়েছিল ওই একই দিনে। পশ্চিম বর্ধমান জেলায় জেলা পরিষদে শপথ গ্রহণ হয়েছিল আরও পরে।আবার পঞ্চায়েত সমিতি গঠনেও শর্ত রয়েছে। পূর্ববর্তী সমিতির পাঁচ বছরের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগে নতুন সমিতি গঠন করা যাবে না। তা ছাড়া প্রতিটি জেলা ধরে বহু পঞ্চায়েত সমিতির সংখ্যা অনেক। সব কটি সমিতি একদিনে গঠন করা সম্ভব নয়। তাতেও বেশ কিছুটা সময় লাগবে।ঠিক এই কারণের জন্যই পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদে নতুন বোর্ড গঠনে আরো ২ মাস দেরি হবে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close
Back to top button